লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ উপজেলা দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ এক সময়ের আলোচিত সন্ত্রাসের জনপদ খ্যাত লক্ষ্মীপুরের পূর্বাঞ্চল চন্দ্রগঞ্জ থানা এলাকায় দ্রুত উপজেলা বাস্তবায়নের দাবি জানান লক্ষ্মীপুরের বিশিষ্ট লেখক সাংবাদিক ও সমাজকর্মী এস এম আওলাদ হোসেন। তিনি জানান সন্ত্রাসের জনপদ খ্যাত চন্দ্রগঞ্জ এলাকা সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এখানে এখন শান্তির সু-বাতাস বইছে।তাই এটাকে ধরে রাখতে চন্দ্রগঞ্জ থানা কে উপজেলা রুপান্তর করা এখন সময়ের দাবি। ইতিপূর্বে চন্দ্রগঞ্জ উপজেলা বাস্তবায়ন হবে বলে বাংলাদেশ সরকারের সেতু ও যোগাযোগ মন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও সাবেক বেসরকারি বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রী একেএম শাজাহান কামাল মহোদয় সহ জনপ্রতিনিধিগন স্থানীয় জনগণকে দেয়া প্রতিশ্রুতি দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি জানান জনাব আওলাদ হোসেন। তিনি বলেন সরকার এ অঞ্চলের সন্ত্রাস দমন করে উন্নয়ন করেছেন অবাধ চিত্তে। এই অঞ্চলের একটি ইউনিয়ন(বশিকপুর) লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর) আসনে অবস্থান। এতে অবকাঠামো উন্নয়নের জটিলতা হতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন। তিনি উক্ত ইউনিয়নকে লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসনে বিন্যাস করার দাবি জানান। সরকার চন্দ্রগঞ্জ থানা এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। এর ফলে মানুষের জীবন মান উন্নয়নের সাথে সাথে শিক্ষার মান বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও তিনি বলেন, সন্ত্রাস না থাকায় এখন এখানকার মানুষ নির্ভয়ে ব্যবসা বানিজ্য করতে পারে। আমাদের মা বোনরা নিরাপদে বাড়ি ফিরতে পারে। সরকার মাদককে জিরো টলারেন্স দেখিয়েছে। চন্দ্রগঞ্জে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে মাদক ব্যবসায়ীদের আধিপত্য অনেকাংশে কমেছে। চন্দ্রগঞ্জ থানা ৯টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। তাই চন্দ্রগঞ্জের মানুষের জীবন যাত্রার মান উন্নয়নে উপজেলা অতীব জরুরি। এই দাবি দ্রুত বাস্তবায়নে তিনি সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান। জনাব এম এম আওলাদ হোসেন চন্দ্রগঞ্জ থানা এলাকার বশিকপুর ইউনিয়নের বালাশপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ভবিষ্যতে এই এলাকার মানুষের সেবা করে যাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন।

Facebooktwittergoogle_pluspinterestlinkedin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *