চট্টগ্রামের পটিয়া থানার ওসি নেয়ামতের শাস্তির দাবিতে বিশাল মানববন্ধন

মাজেদুল ইসলামঃ

সংবাদ প্রকাশের জেরে মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলায় ২ জন সাংবাদিককে গ্রেপ্তার ও নির্যাতন করায় চট্টগ্রামের পটিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ নেয়ামত উল্লাহর শাস্তির দাবীতে গতকাল রোববার সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছেন বিভিন্ন সংগঠনের সাংবাদিকবৃন্দ। এতে সাংবাদিকদের অধিকার রক্ষার সংগঠন ফেডারেশন অফ বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অর্গানাইজেশন (এফবিজেও),বাংলাদেশ অনলাইন প্রেস ক্লাব,বাংলাদেশ অনলাইন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ রুর‍্যাল জার্নালিস্ট ফাউন্ডেশন,বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের ব্যানারে উপস্থিত ছিলেন, এফবিজেও’র চেয়ারম্যান এস এম মোর্শেদ,আর জে এফ এর চেয়ারম্যান এস এম জহিরুল,বিএমএসএফ এর সভাপতি আহমেদ আবু জাফর, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেতা নুরুল আবছার,আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী জেবিন সুলতানা কান্তা,সিটিজি ক্রাইম টিভি’র চেয়ারম্যান আজগর আলি মানিক, বনপার মহাসচিব এ এইচ এম তারেক চৌধুরীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।


মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ওসি নেয়ামত অন্যায়ভাবে সিটিজি ক্রাইম টিভি’র ২ জন সাংবাদিককে নির্যাতন ও তাদের বিরুদ্ধে মনগড়া সাজানো মামলা দিয়েছে।তাই অচিরেই এ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারসহ ওসি নেয়ামতের শাস্তি দেয়া না হলে ভবিষ্যতে আরো কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে বলেও জানান তারা।
এসময় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহমদ আবু জাফর সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, সাংবাদিকদের প্রতি পুলিশের এমন আচরণ কিছুতেই মেনে নেয়া যায় না।এ ধরনের ঘটনার যেনো দ্বিতীয়বার পুনরাবৃত্তি না ঘটে সেজন্য তিনি সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
মানববন্ধনে এফবিজেও এর চেয়ারম্যান ও সাংবাদিক নেতা এস এম মোর্শেদ তার বক্তব্যে বলেন, সাংবাদিকরা জাতির বিবেক। কিছু অসাধু পুলিশ তাদের অপকর্ম ধামাচাপা দেয়ার জন্য এধরনের অন্যায়,নির্যাতনের প্রতিযোগিতায় নেমেছে।তাই দ্রুত তাদের বিরুদ্ধে সরকার ও সাংবাদিক মহলকে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানান এ সাংবাদিক নেতা।
এসময় আরজেএফ এর চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়ক আজগর আলি মানিক বলেন, পটিয়া থানার ওসি সাংবাদিক নির্যাতন ও মিথ্যা মামলার মাধ্যমে ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন।ওসি নেয়ামতের অন্যায়ের অবসান ঘটাতে এবং সমাজে সত্যকে প্রতিষ্ঠিত করতে তিনি সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।
উল্লেখ্য , গত ২৭ নভেম্বর সকালে পটিয়া থানার ওসি নেয়ামত উল্লাহ গৃহবধূ চুমকি হত্যা ঘটনার ব্যাপারে তথ্য দেয়ার নামে ফোন করে সিটিজি ক্রাইম টিভি’র সাংবাদিক রতন বড়ুয়া ও সাংবাদিক সাহেদুল ইসলাম সাগরকে থানায় ডেকে নিয়ে যায়।এরপর পূর্বের সংবাদ প্রকাশের জের ধরে তাদের নির্যাতন করে সব কেড়ে নেয়া হয় এবং ২০ হাজার টাকার মিথ্যা চাঁদাবাজি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়।

পটিয়া থানার ওসি নেয়ামত উল্লাহ’র শাস্তির দাবিতে গতকাল সকাল ১০ টা থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শুরু হওয়া মানববন্ধনে ওসির শাস্তি দাবি করে বক্তব্য রেখেছেন বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এতে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্য, এফবিজেও’র চেয়ারম্যান এস এম মোর্শেদ,আর জে এফ এর চেয়ারম্যান এস এম জহিরুল, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেতা নুরুল আবছার,আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় নেত্রী জেবিন সুলতানা কান্তা,বনপার মহাসচিব এ এইচ এম তারেক চৌধুরী, সাংবাদিক নেতা কে এম রুবেল,সাংবাদিক মোতালেব হোসেন, জুরাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি-সাধারন সম্পাদক,যাত্রাবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি, রুহিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি, ডিএসটিভি খবরের চেয়ারম্যান সানজিদা আক্তারসহ আরো অনেকে।

Facebooktwittergoogle_pluspinterestlinkedin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *