Latest

ক্যারিয়ারের শুরুতেই প্রতারিত তানহা

9-768x512

ঢাকাই চলচ্চিত্রের নতুন মুখ তানহা তাসনিয়া। নীরবের বিপরীতে ‘ভোলা তো যায় না তারে’ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক ঘটে তার। এরইমধ্যে আরিফিন শুভর সঙ্গে জুটি বেঁধে ‘ভালো থেকো’ এবং শাকিবের সঙ্গে ‘ধূমকেতু’ ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। তবে ক্যারিয়ারের শুরুতেই নোংরা ফিল্ম পলিটিক্সের শিকার হয়ে প্রতারিত হলেন সম্ভবনাময়ী এই নায়িকা।

শফিক হাসানের পরিচালনায় ‘ধূমকেতু’ ছবিতে শাকিব-পরীমনির সঙ্গে পর্দা শেয়ার করেন তানহা। আগামী ৯ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। তবে এই ছবির পরিচালক তানহার ক্যারিয়ারে ক্ষতির এক দ্বার উন্মোচন করেছেন।

শফিক হাসান পরিচালিত দ্বিতীয় ছবি ‘ধূমকেতু’ ২০১৪ সালের ২৩ জুন পূবাইলে মহরতের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে। মহরত শুটিংয়ে অংশ নেন ছবির নায়ক শাকিব খান ও নায়িকা তানহা। ছবির অন্যতম নায়িকা পরীমণি পরের দিনগুলোতে থাকলেও ছিলেন না মহরতে। সেই তানহাকেই ‘মাইনাস ফর্মূলা’ প্রয়োগ করে ‘ধূমকেতু’ থেকে বাদ দেয়ার সমস্ত আয়োজন করা হয়েছে।

সম্প্রতি ‘ধূমকেতু’র ট্রেলর প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে দেখা যায়নি তানহাকে। সুকৌশলে তানহার সিকুয়েন্স কর্তন করা হয়েছে। যা নিয়ে উদ্বিগ্ন নায়িকা। ট্রেলরে নিজেকে না পেয়ে হতাশ তিনি। এমনকি তাকে দিয়ে ডাবিংও করানো হয়নি। দুই নায়িকার এক নায়িকা হওয়া স্বত্তেও শাকিব খানের সঙ্গে তানহার একটি ডুয়েট গানের শুটিং চিত্রনাট্য থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। শাকিব-পরী-তানহার অংশগ্রহণে একটি গানের শুটিং হলেও তানহা চিন্তিত। ছবিতে গানটি থাকছে কিনা এ ব্যাপারে তার ভাবনা কিছুতেই যাচ্ছে না।

তবে তানহা সবচেয়ে বেশী অবাক হয়েছেন ছবিটির পোস্টার দেখে। সেখান থেকেও বাদ দেয়া হয়েছে তাকে। অথচ পোষ্টারে ছবির আইটেম গার্ল বিতর্কিত মডেল ও অভিনেত্রী হ্যাপিকে রাখা হয়েছে। যা চরম অপমানজনক বলে মন্তব্য করেছেন তানহা।

বিষয়গুলো জানতে পেরে পরিচালকের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তানহা। পরিচালক দায় চাপিয়ে দেন প্রযোজকের উপরে। এ থেকে স্পষ্ট প্রতীয়মান হয় যে, পরিচালক ‘ধূমকেতু’তে ছিলেন কাঠের পুতুল। প্রযোজকের কথায়ই উঠবস করেছেন তিনি। কিংবা পরিচালক মিথ্যাচার করছেন।

এ প্রসঙ্গে তানহা বলেন, ‘আমরা নতুনরা যদি শুরুতেই এভাবে প্রতারিত হই, তাহলে কীভাবে নতুন শিল্পীরা চলচ্চিত্রে জায়গা করে নেবে? আমার অনুমতি ছাড়াই অন্য একজনকে দিয়ে আমার ডাবিং করানো হয়েছে। আমি সিকুয়েন্স দেখে ডাবিং করলে ওদের চতুরতা ধরে ফেলবো, তাই ডাবিংয়েই আমাকে ডাকা হয়নি। আমি আমার গানের শুটের কথা জানতে চাইলে পরিচালক বলেছেন, শাকিব ভাই ‘ডেট’ দেন না।

আমার সাথে যে যে কথা হয়েছে, তার কোনোটাই রাখা হয়নি। আমি ছবির দুই নায়িকার একজন। আমার সঙ্গে সেভাবেই কথাবার্তা হয়েছে শুরুতে। এখন পরিচালক বলছেন, আমি নাকি গেষ্ট আর্টিষ্ট! উনি বলিউডের দৃষ্টান্ত দেখাচ্ছেন আমাকে। গেষ্ট আর্টিষ্ট হিসেবে ছবিটি করিনি আমি। নায়িকা হিসেবে করেছি। আমাকে নায়িকার সম্মান দিতে পারেননি ওনারা।’

তিনি আরো বলেন, ‘পোস্টারে, ট্রেলরে আমাকে না রাখায় অনেকেই ভাবছেন, আমি এতোদিন ফাঁকা আওয়াজ দিয়েছি। আমি ‘ধূমকেতু’র নায়িকা। তাই আমি ‘ধূমকেতু’র প্রচারণা করেছি। মিডিয়াও আমাকে ‘ধূমকেতু’র নায়িকা বলে দর্শকদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে। মিডিয়ার সাথেও কি চিট করা হলো না? একজন নায়িকা হঠাৎ করে কি ভ্যানিশ হয়ে গেলেন?’

অন্যদিকে পরিচালক শফিক হাসান বলেন, ‘তানহাকে গেষ্ট আর্টিস্ট হিসবেই নিয়েছি। ছবির শুটিংয়ের মাঝখানে গল্পের অনেক পরিবর্তন হয়েছে। এজন্য শাকিব-পরী-তানহার গানটি শুট করার পর ফেলে দিতে হয়েছে। গ্রামে-গঞ্জের পোষ্টারে তানহা থাকছে। হল ট্রেলারেও তানহা আছে। কারো দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ওকে বাদ দেয়া হয়নি। এটা আমাদেরই সিদ্ধান্ত। তানহাকে জিজ্ঞেস করেই ওর নাম অতিথি শিল্পী হিসেবে রেখেছি। তা না হলে ও সেকেন্ড হিরোইন হয়ে যেতো ছবিতে। ও বা আমরা কেউ-ই সেটা চাইনি। আর ডাবিংয়ে ওকে রাখা হয়নি কারণ ওর দৃশ্য কম।’

facebooktwittergoogle_pluspinterestlinkedin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *