রাউজানের পাহাড়তলী থেকে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ীকে পুলিশে দিল এলাকাবাসি

anwar 5

এম জাহাঙ্গীর নেওয়াজ (রাউজান) চট্টগ্রাম
রাউজানের পাহাড়তলী ইউনিয়ন থেকে স্থানিয় চেয়ারম্যান, মেম্বার ও এলাকাবাসি মিলে ৬শ ৩০ পিচ ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী মো. ওসমান (৩৫) কে থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছে। ধৃত মো, ওসমান ওই ইউনিয়নের ঊনসত্তপাড়া গ্রামের স্বন্দীপ পাড়া এলাকার কবীরের ছেলে। আটককারীরা পুলিশকে ৬শ ৩০ পিচ ইয়াবা বুঝিয়ে দেয়ার কথা বললেও পুলিশ বলছে, তারা পেয়েছে ৩শ ৫০ পিচ ইয়াবা। বিষয়টি রহস্যজনক বলে মনে করছে সোপর্দকারীরা। এই বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন, মেম্বার কামরুল ইসলাম, সাবেক মেম্বার সুজন মল্লিক, মাসুদ হোসেন রুবেল জানান, মাদক ব্যবসায়ী ওসমানের কাছ থেকে ইয়াবা কেনার কৌশল করে রবিবার রাত ৯টার দিকে এক ব্যক্তিকে তার কাছে পাঠানো হয়। এরপর ওসমান ওই ব্যক্তির কাছে ইয়াবা বিক্রির জন্যে ঘর থেকে ইয়াবা আনতে গেলে সে আমাদের মোবাইল ফোনে ইয়াবা আনতে যাওয়ার খবর দেয়। এরপরই আমরা এবং মেম্বার আমীর হোসেন, সিরাজুল ইসলাম, হানিফ, হায়দার, জালাল, সাহাবুদ্দীন, এরশাদ, এসকান্দরসহ এলাকাবাসী ঘটনাস্থল স্বন্দীপ পাড়ায় গিয়ে ইয়াবা ব্যবসায়ী ওসমানকে আটক করি। এরপর সে ২শ পিচ এনে দেয় জনতার কাছে। পরবর্তিতে জনতা তার উপর চাপ সৃষ্ঠি করলে তার স্ত্রী বিউটি আকতার ঘরে রাখা আরো ৪শ ৩০ পিচ ইয়াবা এনে দেয়। বিষয়টি থানা পুলিশকে খবর দেয়া হলে থানার এসআই মো. সাইমুল ঘটনাস্থলে আসেন। এরপর আমরা গুনে গুনে ৬শ ৩০ পিচ ইয়াবাসহ ধৃত ব্যক্তিকে তার কাছে বুঝিয়ে দিই। এদিকে পরদিন সোমবার এ বিষয়ে এসআই সাইমুলের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন ‘৬শ ৩০ পিচ নয়, ৩শ ৫০ পিচ ইয়াবাসহ এক ব্যক্তিকে আমার কাছে সোপর্দ করেছে জনতা। ৬শ ৩০ পিচ ইয়াবার মধ্যে বাকীগুলো কোথায় গেল, সে বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন ‘জব্দকৃত ইয়াবাগুলোর মধ্যে বেশিরভাগ ভাঙ্গা। সেকারনে ৩শ ৫০ পিচ বুঝিয়ে দেওয়াটাও কষ্ঠ হবে।’ এ প্রসঙ্গে পাহাড়তলী ইউপি চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন বলেন ‘৩শ ৬০ পিচ নয়, ৬শ ৩০ পিচ ইয়াবা পুলিশকে গুনে দেয়া হয়েছে জনতার সামনে। পুলিশ কেন মিথ্যা বলছে বুঝছিনা।’ এই ব্যপারে রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মর্কতা বলেন ‘জব্দকৃত ইয়াবাগুলো দুইটি প্যকেট মধ্যে বেশিরভাগ ভাঙ্গা গুড়া তাই তাদের ধারণা ভুল হতে পারে।

Facebooktwittergoogle_pluspinterestlinkedin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *