রনির গ্রেফতার নিয়ে ছাত্রলীগে তোলপাড়

13138870_10204704281445483_6266075341430108838_n-copy-768x512
ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের অভিযোগে গত ৭ মে হাটহাজারি মির্জাপুর ইউনিয়ন একটি কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে দায়িত্বরত জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি সহ নয় জন আটক করে বিজিবি।পুলিশের জানায় এসময় রনির কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র পাওয়া গেছে তারপর তাকে হাটাহাজারি থানায় সোপর্দ করা হয়। এরপর তাৎক্ষনিকভাবে দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়ে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।প্রসঙ্গত, রনি মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি মহিউদ্দিন চৌধুরীর ঘনিষ্ট ও প্রভাবশালী অনুসারী হিসেবে পরিচিত। রনির গ্রেফতার নিয়ে বর্তমানে ছাত্রলীগে তোলপাড় চলছে পুলিশের পক্ষ থেকে নির্বাচনি আচরণ বাধু লঙ্ঘন ও অবৈধ অস্ত্রসহ গ্রেফতারের কথা বলা হলেও মহিউদ্দিন চৌধুরী অনুসারীদের অভিযোগ রনি রাজনৈতিক রোষানলের শিকার। তবে তার বিরোধী পক্ষের দাবী রনি তার রাজনৈতিক প্রভাব দেখাতে গিয়েই এমন কর্মফল ভোগ করছে। কিন্তু সচেতন মহল বলছেন, ক্ষমতাসীন দলের কর্মী বলেই রনিকে নিয়ে মতামাতিটা বেশি হচ্ছে এবং ষডযন্ত্রের শিকার হয়েছে।

13177777_10204707196718363_7964138550690362368_n

খোঁজ নিয়ে জানা যায় হাটাহাজারি মির্জাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মো:নুরুল আবছার সম্পর্কে রনির মামা হয়।
এদিকে রনির অনুসারীরা বলছেন দীর্ঘদিন ধরে নুরুল আজিম রনি নগরের ছাত্র রাজনীতিতে বেশ আলোচিত মুখ রনির ইমেজ কে বিতর্কিত করতে এবং মহিউদ্দিন চৌধুরীকে রাজনৈতিক ভাবে ঘায়েল করতেই অদৃশ্য কারো ইন্ধনে এই গ্রেফতার বলে তাদের দাবি। এ প্রসঙ্গে নগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহম্মেদ ইমু বলেন অস্ত্রসহ রনির আটক হওয়া ঘটনাকে ষড়যন্ত্রমূলক ও সাজানো নাটক বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি গতকাল রাতে আমাদের কে বলেন সরকারের ভেতরেই অনেক ষড়যন্ত্রকারী রয়েছে।যারা নিজেরাই নিজেদের প্রতিপক্ষ ভাবে।মহানগর ছাত্রলীগের রনির শর্তহীন মুক্তি চাই। চিঠির মাধ্যমে রনির সাংগঠনিক দায়িত্ব থেকে নিশ্চিত হতে পারিনি।তাই আপাতত ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্তেও আসা সম্ভব হচ্ছে না।

13178806_10204707196878367_6224973473354734592_n

রনির অনুসারী সরকারী আশেকানে আউলিয়া ডিগ্রী কলেজ ছাত্রসংদের জি,এস আমিনুল করিম বলেছেন,সম্প্রতি জামায়াত শিবিরের তিন দশকের ঘাঁটি চট্টগ্রাম কলেজ ও মহসিন কলেজ থেকে বিতাড়িত করা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন -সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়া এবং প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বশেষ সহিংসতার ঘটনায় বিশেষ ভূমিকা রাখায় দ্রুত লাইমলাইটে চলে আসেন নুরুল আজিম রনি।মূলত রনির ইমেজকে বিতর্কিত করতেই এই গ্রেফতার।

13092146_10204707198278402_7840993863703118908_n

এদিকে রনির মুক্তির দাবীতে গতকাল আদালত চত্বরে অবস্থান ধর্মঘট পালন করে মহানগর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। গতকাল দুপুরে মিছিল নিয়ে তারা আদালত প্রাঙ্গনে যান।মিছিলটি আদালত ভবন,জেলা প্রশাসক ও বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় প্রদক্ষিণ করে।এরপর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সামনে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নিচে প্রতিবাদ সমাবেশ করে ছাত্রলীগ।সমাবেশ থেকে আজ সোমবারের মধ্যে রনিকে মুক্তি না দিলে আদালত চত্বরে লাগাতার অবস্থান ধর্মঘট পালনের ঘোষনা দেওয়া হয়। এদিকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অবস্থান ধর্মঘট করার সময় জেলা প্রশাসক মেজবা উদ্দিন আহম্মেদ এসে নেতাকর্মীদের শান্ত করেন। এ সময় তিনি রনির গ্রেফতার ও দন্ডিত হওয়া দু:খজনক বলেও মন্তব্য করে তাকে আইনি প্রক্রিয়ায় মুক্ত করতে সহযোগিতা করার কথা জানান। জেলা প্রশাসক বলেন আইনি প্রক্রিয়ায় একটি ঘটনা ঘটেছে। এখন আইনি প্রক্রিয়াতেই তাকে মুক্ত করতে হবে। এক্ষেত্রে তাকে আইনি প্রক্রিয়ায় মুক্ত করতে আমি সহযোগিতা করব।

Facebooktwittergoogle_pluspinterestlinkedin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *