মা ও দুই ছেলের মৃত্যু মিরসরাইয়ে

13-03-16-Road-Accident_Mirs-731x525

মিরসরাইয়ে বেপরোয়া গতির পিকআপের ধাক্কায় প্রাণ গেলো মা ছেলেসহ একই পরিবারের ৩ জনের। গতকাল রবিবার সকালে পুরাতন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বারইয়ারহাট পৌরসভার তিতা বটতল নামক স্থানে মাছবহনকারী একটি পিকআপের ধাক্কায় সিএনজি অটোরিক্শার যাত্রী মা ও দুই ছেলে ঘটনাস্থলে নিহত হন। এ সময় অটোরিক্শায় থাকা বাবা ও মেয়ে আহত হন। নিহত ও আহতরা একই পরিবারের সদস্য। নিহতরা উপজেলার ৩ নম্বর জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইমামপুর গ্রামের আমীর হোসেন ভূঁইয়া বাড়ির বাসিন্দা। তারা বারইয়ারহাট পৌরবাজার থেকে সিএনজি অটোরিক্শাযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। নিহতরা হলো দিদারুল আলমের স্ত্রী সাহেদা আক্তার (৩৩), ছেলে আব্দুল্লাহ আল সাইমুম (৯), সাইদুল ইসলাম (১০ মাস)। আহতরা হলেন দিদারুল ইসলাম (৪০), ইভা আক্তার (৫)। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকাল ৭ টার সময় পুরাতন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বারইয়ারহাট পৌরসভার তিতার বটতল মানক স্থানে মুহুরী প্রজেক্ট থেকে মাছবহনকারী একটি পিকআপ বেপরোয়া গতিতে সিএনজি অটোরিক্শাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে অটোরিক্সা যাত্রী মা ও ২ ছেলে নিহত হন এবং আহত হন বাবা ও মেয়ে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুর্ঘটনার শিকার অটোরিক্শা উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে এবং দুর্ঘটনাস্থল থেকে পিকআপটি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। পিকআপ চালক পলাতক রয়েছে। নিহতের আতœীয় জিয়াউদ্দিন বলেন, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী দিদারুল আলম টাঙ্গাইল জেলায় নিজ ফুফুর বাড়িতে সপরিবারে বেড়াতে গিয়েছিলেন। রবিবার ভোরে টাঙ্গাইল থেকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হন। বারইয়ারহাট বাজারে বাস থেকে নেমে সিএনজি অটোরিক্সা যোগে বাড়ি ফেরার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাইন উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, দুর্ঘটনার শিকার অটোরিক্সাটি ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে এবং পিকআপটি উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

Facebooktwittergoogle_pluspinterestlinkedin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *